খুবিতে অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণের বাঁধা কাটলো

বিজ্ঞপ্তি:
খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা সংক্রান্ত প্রচলিত অধ্যাদেশে অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণের বিষয়ে কোনো নির্দেশনা ছিলো না। ফলে প্রস্তুতি নেওয়া হলেও অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণ সম্ভব হচ্ছিলো না। আজ ২৭ জুন একাডেমিক কাউন্সিলের এক সভায় উদ্ভুত করোনা পরিস্থিতিতে পরীক্ষা গ্রহণের বিষয়ে আলোচনায় সরকার করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত অন্তবর্তীকালীন ব্য্যবস্থা হিসেবে অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এর ফলে এখন অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণের আর কোনো বাঁধা থাকলো না। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন এর সভাপতিত্বে বেলা সাড়ে ১১ টায় একাডেমিক কাউন্সিলের ১৭২ তম সভা (জরুরী) অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা, ডিনবৃন্দসহ সংশ্লিষ্ট স্থানীয় অন্যান্য সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় করোনা পরিস্থিতিতে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অনলাইন পাঠদান ও পরীক্ষা সংক্রান্ত নীতিমালা প্রণয়ন কমিটির প্রতিবেদন ও কারিগরি কমিটি কর্তৃক দাখিলকৃত প্রতিবেদন নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয় এবং সেখানে অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। যুগান্তকারী এ সিদ্ধান্তের ফলে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত অনলাইনে এবং স্বাভাবিক হলে সশরীরে পরীক্ষা গ্রহণের সব পথ খোলা থাকলো। এই সিদ্ধান্তের ফলে করোনা মহামারির পরিস্থিতিতে ইতোমধ্যে একাডেমিক ক্ষেত্রে যে ক্ষতি হয়েছে তা অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে অনেকটা পুষিয়ে নেওয়া সম্ভব হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের সচিব রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস জানান, অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণের ব্যাপারে খুব শীঘ্রই একাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রণয়ন করা হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের নবনিযুক্ত উপাচার্যের দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রথম একাডেমিক কাউন্সিল সভায় যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো তা অত্যন্ত সময়োপযোগী এবং অনলাইনে শিক্ষা ও পরীক্ষা কার্যক্রম অব্যহত রাখার ক্ষেত্রে তা খুবই তাৎপর্যপূর্ণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x